বুধবার, জানুয়ারি ২৭, ২০২১ ইং | মাঘ ১৩, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১১ জামাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

বার্তাপ্রতিক্ষণ / স্বাস্থ্য বার্তা / খেজুরের পুষ্টিগুণ

খেজুরের পুষ্টিগুণ

খেজুর অনেকেরই খুব পছন্দের। শীতকালে আরেকটি জিনিষ আমরা পাই যা প্রায় সকলেরই পছন্দ। আর তা হলো খেজুরের রস। বিভিন্ন শীতের পিঠা খাওয়া হয় খেজুরের রস দিয়ে। তবে খেজুরের পুষ্টিগুণ সম্পর্কে কি বলেন চিকিৎসকগণ? চলুন জেনে নিই।

চিকিৎসকগণ বলেন, সাধারণত শীতের আগে দিয়ে পরিবেশে ক্ষতিকর জীবাণুর মাত্রা এতটাই বেড়ে যায় যে  শরীর দ্রুত অসুস্থ হয়ে পড়ে। ঠিক এ কারণে সারা শীতকাল নিয়মিত খেজুর খাওয়া উচিৎ।

অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ খেজুর শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। খেজুরে থাকে ডায়েটারি ফাইবার, পটাশিয়াম, এবং আরও নানা ধরনের উপকারী উপাদান যা শরীরে প্রবেশ করে মস্তিষ্কের সেলের ক্ষমতাকে অনেকাংশে বাড়িয়ে তোলে। তাই প্রতিদিন অন্তত ২ থেকে ৩ টা খেজুর খাওয়া উচিত।

খেজুরে আরও রয়েছে ভিটামিন সি এবং ডি যা ত্বক টান রাখতে সহয়তা করে।সেই সঙ্গে ত্বকের বলিরেখাও  দূর করে। ফলে ত্বক হয়ে ওঠে প্রাণবন্ত এবং উজ্জ্বল । এতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি এজিং উপাদান থাকায় খেজুর ত্বকের তারুণ্য বজায় রাখতে ভূমিকা রাখে।  

ডায়াটারি ফাইবারে সমৃদ্ধ হওয়ার কারণে নিয়মিত খেজুর খেলে শরীরে খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমতে শুরু করে। ফলে হঠাৎ করে হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের ঝুঁকি কমে যায়। এছাড়া কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয় ।

নিয়মিত খেজুর খেলে হজমশক্তি বাড়ে।এ কারণে পেটের বড় কোনও অসুখ কম হয়। প্রতিদিন ২ থেকে ৩ টা খেজুর খেলে শরীরে ক্যান্সারের সেল জন্ম নেওয়ার আশঙ্কা কমে যায়। এই ফলটির মধ্যে থাকা প্রাকৃতিক সুগার শরীরে শক্তি জোগায়। সেই সঙ্গে মানসিক সুস্থতাও বাড়ে। তবে আমরা সাধারণত রোজা ছাড়া খেজুর খুব একটা খাই না। তবে প্রতিদিনই আমাদের অন্তত দু-তিনটা করে খেজুর খাওয়া উচিৎ। যা আমাদের শরীরকে সুস্থ রাখবে এবং অনেক ধরণের রোগ থেকে আমাদের দূরে রাখবে।

আরও পড়ুন লিভার সিরোসিস থেকে মুক্তির উপায়

আরও পড়ুন

কোরবানিতে করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে যে নিয়মগুলো মেনে চলবেন-

৩১ জুলাই ২০২০

কোরবানিতে করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে চাইলে এই ১০ টা নিয়ম... বিস্তারিত এখানে

আলুর রসের উপকারিতা

২৫ জুলাই ২০২০

আলু আমাদের দৈনন্দিন জীবনের খাদ্য তালিকায় একটা অংশ। সবজি হিসেবে... বিস্তারিত এখানে