বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২, ২০২০ ইং | চৈত্র ১৯, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ৬ শাবান, ১৪৪১ হিজরি

বার্তাপ্রতিক্ষণ / অর্থ ও বাণিজ্য / চোরাচালানী বন্ধে স্বর্ণ নীতিমালা অনুমোদন

স্বর্ণ নীতিমালা

চোরাচালানী বন্ধে স্বর্ণ নীতিমালা অনুমোদন

আমদানির বিধান রেখে স্বর্ণ নীতিমালা-২০১৮-এর খসড়া অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

গতকাল মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেন; স্বর্ণ আমদানি সহজ করা, এ শিল্পে জবাবদিহিতা আনা, স্বর্ণালঙ্কার রফতানিতে উৎসাহ জোগানো ও স্বর্ণ খাতে ব্যবসাবান্ধব পরিবেশ বজায় রাখতে কার্যকর নিয়ন্ত্রণ, সমন্বয়, পরিবীক্ষণ ও তদারকি ব্যবস্থা গড়ে তোলাই এর লক্ষ্য।

বর্তমান নীতির অতিরিক্ত হিসেবে দেশের অভ্যন্তরীণ স্বর্ণালঙ্কারের চাহিদা পূরণে অনুমোদিত ডিলারের মাধ্যমে স্বর্ণের বার আমদানির নতুন পদ্ধতি প্রবর্তন করা হবে। অনুমোদিত ডিলার নির্বাচন করবে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃৃপক্ষ, এজন্য তারা নীতিমালাও প্রণয়ন করবে। অনুমোদিত ডিলার সরাসরি প্রস্তুতকারী বা সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে স্বর্ণের বার আমদানি করবে এবং তা অলঙ্কার প্রস্তুতকারকের কাছে বিক্রি করতে পারবে। অলঙ্কার প্রস্তুত হলে তা রপ্তনির সুযোগও রাখা হয়েছে নীতিমালায়।

দ্য ফরেন এক্সচেঞ্জ রেগুলেশন অ্যাক্ট-১৯৪৭-এর অধীনে বাংলাদেশ ব্যাংক স্বর্ণ আমদানির ডিলার অনুমোদন দেবে।

কাস্টমস আইনের খসড়ায় চূড়ান্ত অনুমোদন: বৈঠকে কাস্টমস আইন, ২০১৮-এর খসড়ায় চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, বিদ্যমান আইনটি ১৯৭০ সালের। এসংশ্লিষ্ট অনেক বিষয়ে পরিবর্তন হওয়ায় আইনটিকে হালনাগাদ করা হচ্ছে। এজন্য ২০১৪ সাল থেকে প্রক্রিয়া চলছে। আগের আইনটিকে বাংলায় রূপান্তর করা হয়েছে। এছাড়া মূল আইনে তেমন কোনো পরিবর্তন নেই। প্রস্তাবিত আইন অনুযায়ী জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সঙ্গে পরামর্শ করে সরকার বিধি প্রণয়ন করতে পারবে।

পরিবেশ নীতিতে আগে ১৫টি খাত অন্তর্ভুক্ত ছিল। এতে আরো নয়টি খাত যুক্ত করে মোট ২৪টি খাত করা হয়েছে। এ খাতগুলো হলো ভূমিসম্পদ ব্যবস্থাপনা, পানিসম্পদ ব্যবস্থাপনা, বায়ুদূষণ নিয়ন্ত্রণ, নিরাপদ খাদ্য ও সুপেয় পানি, কৃষি, জনস্বাস্থ্য, স্বাস্থ্যসেবা, আবাসন, গৃহায়ণ ও নগরায়ণ, শিক্ষা ও জনসচেতনতা, বন ও বন্যপ্রাণী, জীববৈচিত্র্য, পাহাড় ও প্রতিবেশ, মত্স্য ও প্রাণিসম্পদ, উপকূলীয় সামুদ্রিক প্রতিবেশ, পরিবেশবান্ধব পর্যটন, শিল্প উন্নয়ন, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ, যোগাযোগ ও পরিবহন, জনসম্পদ ব্যবস্থাপনা, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় প্রস্তুতি, অভিযোজন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, বিজ্ঞান, গবেষণা, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, রাসায়নিক দ্রব্যাদি ব্যবস্থাপনা ও অন্যান্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ, পরিবেশবান্ধব অর্থনৈতিক উন্নয়ন, টেকসই উন্নয়ন ও ভোগ। পরিবেশের সঙ্গে সম্পর্কিত এমন সব খাতকেই এ নীতিমালার আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে।

নয়টি খাত যুক্ত করে নতুন পরিবেশ নীতি: গতকালের বৈঠকে নতুন পরিবেশ নীতিও অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেন, ১৯৯২ সালে প্রথম জাতীয় পরিবেশ নীতি প্রণয়ন করা হয়। ২৬ বছরে পরিবেশের ক্ষেত্রে বিশেষ করে জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষেত্রে আমাদের অনেক অগ্রগতি আছে। আমরা নিজস্ব ট্রাস্ট ফান্ড গঠন করেছি, সেখানে অনেক ইনভেস্টমেন্ট করেছি। বিশ্বের অনেক দেশই এটা করেনি।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, স্বর্ণের মান যাচাইয়ে সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ে হলমার্ক ব্যবস্থার প্রবর্তন করতে হবে। স্বর্ণ, স্বর্ণালঙ্কার ক্রয়-বিক্রয়ে হলমার্ক বাধ্যতামূলক করতে হবে, খাদের পরিমাণ সুনির্দিষ্ট করতে হবে। ভোক্তাদের স্বার্থ সংরক্ষণের জন্য বিক্রয় ক্যাশ মেমোর সঙ্গে স্বর্ণালঙ্কারের হলমার্ক স্টিকার বাধ্যতামূলকভাবে প্রদান করতে হবে।

বিমানবন্দরগুলোয় লাগেজে করে ১০০ গ্রাম পর্যন্ত স্বর্ণ বিনা শুল্কে আনা যাবে উল্লেখ করে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ২৩৪ গ্রাম পর্যন্ত স্বর্ণ শুল্ক দিয়ে আনা যাবে। তবে নীতিমালা চূড়ান্ত হলে এটা আরো বাড়তে পারে।

অর্থনৈতিক বিষয় সম্পর্কিত মন্ত্রিসভা কমিটির অনুমোদনের পর নীতিমালাটি মন্ত্রিসভায় আসে। নীতিমালায় অলঙ্কারের সংজ্ঞা হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে, স্বর্ণ দ্বারা প্রস্তুতকৃত অলঙ্কার ও স্বর্ণের পরিমাণ নির্বিশেষে স্বর্ণের সঙ্গে হীরক, রৌপ্য ও অন্যান্য মূল্যবান ধাতু ও পাথর মিশ্রণে প্রস্তুতকৃত অথবা সাধারণ পাথর দ্বারা খচিত অলঙ্কার।

আরও পড়ুন

মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস আজ

২৬ মার্চ ২০২০

আজ ২৬ মার্চ। মহান স্বাধীনতা দিবস। বাঙালি জাতির জীবনে ঐতিহাসিক... বিস্তারিত এখানে

দেশে আরও এক নারী, দুই শিশুর করোনা শনাক্ত

১৬ মার্চ ২০২০

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩ জন করোনা আক্রান্ত শনাক্ত... বিস্তারিত এখানে