শনিবার, জুলাই ৪, ২০২০ ইং | আষাঢ় ২০, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১১ জ্বিলকদ, ১৪৪১ হিজরি

বার্তাপ্রতিক্ষণ / সংবাদ / খেলাধুলা / ক্রিকেট / ডি ভিলিয়ার্সের অভিষেক ম্যাচে রংপুর রাইডার্সের দাপুটে জয়

ডি ভিলিয়ার্সের অভিষেক ম্যাচে রংপুর রাইডার্সের দাপুটে জয়

প্রথমবারের মতো বিপিএল খেলতে এসেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার এবিডি ভিলিয়ার্স। আজ রংপুর রাইডার্সের জার্সিতে সিলেট সিক্সার্সের বিপক্ষে হয়ে গেল তার অভিষেক। মি. ৩৬০ ডিগ্রির ডেব্যু ম্যাচে জয়ের ধারায় ফিরেছে রংপুর রাইডর্স। সিলেট পর্বের শেষ দিনের প্রথম খেলায় আজ মাশরাফি বাহিনী ৪ উইকেটে হারিয়েছে ডেভিড ওয়ার্নারের সিলেট সিক্সার্সকে।

১৯৫ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে স্কোরবোর্ডে কোনো রান যোগ হওয়ার আগেই ইরফানের বলে সাব্বিরের তালুবন্দি হন ক্যারিবীয় দানব ক্রিস গেইল (০)। এরপর ৬৩ রানের চমৎকার জুটি গড়েন অ্যালেক্স হেলস এবং রাইলি রুশো। এতে অবশ্য সিলেট সিক্সার্সের ফিল্ডারদের ক্যাচ মিসের অবদান আছে। অলক কাপালির বলে ২৪ বলে ৩৩ করা হেলস লিটন দাসের তালুবন্দি হলে ভাঙে এই জুটি। রুশোর সঙ্গী হন বিধ্বংসী প্রোটিয়া তারকা এবি ডি ভিলিয়ার্স।

৩১ বলে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন রাইলি রুশো। দক্ষিণ আফ্রিকার এই তারকা শেষ পর্যন্ত ৩৫ বলে ৯ চার ২ ছক্কায় ৬১ রানে তাসকিনের শিকার হন। এই তরুণ পেসারের করা ওভারের শেষ বলটিতে ২১ বলে ২ চার ২ ছক্কায় ৩৪ রান করা এবিডি ভিলিয়ার্সের স্টাম্প উড়ে যায়। আজই প্রথম বিপিএলে খেলছেন এই প্রোটিয়া কিংবদন্তি। দলীয় ১৭১ রানে মোহাম্মদ মিঠুন (১৪) এবং নাহিদুল ইসলাম (১৯) দুজনেই তাসকিনের শিকার হলে বিপদে পড়ে যায় রংপুর রাইডার্স।

তবে মেহেদী হাসান রানার করা ১৯তম ওভারে এক চার এক ছক্কায় ম্যাচ অনেকটা বের করে ফেলেন ফরহাদ রেজা। শেষ ওভারে জয়ের জন্য দরকার ছিল ৫ রান। তৃতীয় বলে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে দলকে জিতিয়ে দেন ৬ বলে ১৮* রান করা ফরহাদ রেজা। অধিনায়ক মাশরাফি অপরাজিত থাকেন ৫* রানে। রংপুর রাইডার্স ম্যাচ জিতে নেয় ৪ উইকেটে।

এর আগে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) সিলেট পর্বের আজ শনিবার শেষ দিনের প্রথম ম্যাচে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৯৪ রানের পাহাড় গড়ে সিলেট সিক্সার্স। দলীয় ১৩ রানে ৮ বলে ১ চার ১ ছক্কায় ১১ রান করা বিধ্বংসী ইনফর্ম ব্যাটসম্যান লিটন দাসকে ফরহাদ রেজার তালুবন্দি করেন ম্যাশ। সাব্বিরের সঙ্গে জুটিটা ভালোই জমিয়েছিলেন আফিফ হোসেন। কিন্তু ভুল বোঝাবুঝিতে রান-আউট হয়ে শেষ হয় তার ১১ বলে ১৯ রানের ইনিংস।

অনেকদিন পর সাব্বিরের ব্যাটে দেখা যায় রান। বাহারী সব শটে ৩৪ বলে তুলে নেন হাফ সেঞ্চুরি। টানা দুই ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরি করা ওয়ার্নার আজ ১৯ রানে মাশরাফির শিকার হন। ভাঙে ৫১ রানের জুটি। এরপর সাব্বিরের সঙ্গে নিকোলাস পুরানের জুটি জমে ওঠে। শুরু হয়ে ধুন্ধুমার ব্যাটিং। ৮২ রানের এই জুটি ভাঙে সাব্বিরের আউটে।

৫১ বলে ৫ চার ৬ ছক্কায় ৮৫ রান করা এই হার্ডহিটার শফিউলের করা শেষ ওভারে রুশোর তালুবন্দি হন। শেষ পর্যন্ত হাফ সেঞ্চুরি করতে না পারা পুরান অপরাজিত থকেন ২৭ বলে ৪ চার এবং ৩ ছক্কায় ৪৭* রানে। ২ বলে ১ বাউন্ডারিতে জাকের আলী করেন ৫* রান। ৩১ রানে ২ উইকেট নেন মাশরাফি, ১ উইকেট নেন শফিউল ইসলাম। নির্ধারিত ২০ ওভারে সিলেটের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৪ উইকেটে ১৯৪ রান।

আরও পড়ুন

আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে দলে মুস্তাফিজ

২২ জানুয়ারি ২০১৯

গত বছর বাংলাদেশ দলের ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের দলে ফিরে দারুণ... বিস্তারিত এখানে

কাতার বিশ্বকাপেই ৩২ দলের বদলে ৪৮ দল

১৯ জানুয়ারি ২০১৯

২০২৬ সালের আসরে ৪৮-এ উন্নীত করার পরিকল্পনা থাকলেও ২০২২ সালের... বিস্তারিত এখানে