শনিবার, জুলাই ৪, ২০২০ ইং | আষাঢ় ২০, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১১ জ্বিলকদ, ১৪৪১ হিজরি

বার্তাপ্রতিক্ষণ / অটোমোবাইল / বাইক / বাংলাদেশের বাজারে সেরা ৫ মোটরসাইকেল ব্র্যান্ড

বাংলাদেশের বাজারে সেরা ৫ মোটরসাইকেল ব্র্যান্ড

সহজ চলাচলের মাধ্যম এবং দামে সাশ্রয়ী হওয়ার কারণে মোটরসাইকেলের জনপ্রিয়তা দিনদিন বাড়ছেই। আর জনপ্রিয়তার সাথে সাথে বাড়ছে মোটরসাইকেল আমদানি। বাংলাদেশে মোটরসাইকেলের ব্যবসা চলছে প্রায় ১৫টিরও বেশি মোটরসাইকেল ব্র্যান্ডের হাত ধরে। তবে এর মধ্যে বেশকিছু মোটরসাইকেল ব্র্যান্ড দীর্ঘদিন ধরেই তাদের শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে। আজ বাংলাদেশের বাজারে জনপ্রিয় এমনই ৫ টি মোটরসাইকেল ব্র্যান্ড সম্পর্কে আলোচনা করব;

বাজাজ;
বাজাজ ভারতের সর্ববৃহৎ মোটরসাইকেল কোম্পানি। বিক্রি ও জনপ্রিয়তার দিক থেকে এটি আমাদের দেশেও একটি সুবিশাল ব্যান্ড। আমাদের দেশে তাদের পণ্যের তালিকা খুব একটা বেশি না হলেও, তাদের কিছু ইতিহাস সৃষ্টিকারী সাব-ব্র্যান্ড রয়েছে যেগুলো এদেশের রোমাঞ্চপ্রেমী বাইকারদের হৃদয়ে আসন করে নিয়েছে। ২০০০ সালের পর থেকে বাজাজ বাংলাদেশে বাইকিং এর সংজ্ঞাই বদলে দিয়েছে। তাদের সাব-ব্র্যান্ড ‘পালসার’ ও ‘ডিসকভার’ বাংলাদেশের সড়কপথে রাজত্ব করে বেড়াচ্ছে। বাজাজের আরো কিছু জনপ্রিয় বাইকের সিরিজ হলো ‘বাজাজ প্লাটিনা’ ও ‘বাজাজ সিটি’।

এই ব্র্যান্ডের সর্বোচ্চ বিক্রিত মডেল হলো ‘বাজাজ পালসার এএস ১৫০’ এবং ‘বাজাজ ডিসকভার ১২৫’।

হোন্ডা;
আমরা সকলেই হোন্ডা বাইকগুলোর কথা জানি। বিশ্বব্যাপী হোন্ডার বিপুল জনপ্রিয়তা ও সর্বোৎকৃষ্ট কোয়ালিটির ব্যাপারে কোন সন্দেহের অবকাশ নেই। অনেক উত্থান পতনের পরও ব্র্যান্ডটি তাদের যোগ্যতার প্রমাণ দিয়েই এসেছে।

হোন্ডার সর্বাধিক বিক্রিত বাইক হলো ‘হোন্ডা সিবিআর’ সিরিজ এবং এদের মধ্যে ‘হোন্ডা সিবি হরনেট ১৬০আর এসডি’ ও ‘হোন্ডা সিবি ট্রিগার এসডি’ সচেয়ে বেশি জনপ্রিয় মডেল।

ইয়ামাহা
কিছুদিন আগেও বাংলাদেশে ইয়ামাহা মোটরসাইকেলের তেমন পরিবেশনা ছিলো না। ২০১৬ সাল পর্যন্তও ইয়ামাহা বাইকের নিজস্ব শোরুম বলতে কিছুই ছিলো না। কিন্তু এখন তাদের সেরা বাইকগুলো বাংলাদেশের রাস্তা মাতিয়ে বেড়াচ্ছে রাজার মত। তাদের মসৃণ ইঞ্জিনের গতি ও আকর্ষণীয় ডিজাইনের সাথে আপনি তাদের জনপ্রিয় বাইকগুলোয় চড়ামাত্রই উড়ে যাবার মত অনুভব করবেন।

ইয়ামাহা এফজেডএস’ এবং ‘ইয়ামাহা এফজেড ফেজার’ মোটরসাইকেলগুলো তাদের কালেকশনের মধ্যে সর্বাধিক বিক্রিত বাইক। এগুলো বাংলাদেশের সবচেয়ে সেরা ডিজাইনের মোটরসাইকেল বলা চলে।

টিভিএস;
বাংলাদেশে টিভিএস তাদের মোটরসাইকেলের ডিস্ট্রিবিউশন চালাচ্ছে সরাসরি ‘টিভিএস বাংলাদেশ’ নামে। সারাদেশে পরিবহন ক্ষেত্রে টিভিএস বেশ জনপ্রিয় একটি নাম। সাধ্যের মধ্যে দাম ও জ্বালানী-সাশ্রয়ী গুনাগুনের জন্য বাংলাদেশের মোটরসাইকেল মার্কেটে টিভিএস বেশ দ্রুত উন্নতি লাভ করছে।

টিভিএস বাংলাদেশের কর্পোরেট বিক্রিও সময়ের সাথে বেড়েই চলেছে। তাদের স্পোর্টস ফ্ল্যাগশীপ পণ্য অ্যাপাচি আরটিআর ১৫০ ও ১৬০ এর বিভিন্ন প্রতিযোগিদের টক্কর দিয়ে অনেক ভালো পারফর্ম করে চলেছে।

হিরো;
বাংলাদেশি মোটরসাইকেল মার্কেটে সর্বাধিক পণ্যের তালিকাসমৃদ্ধ ব্র্যান্ডের মধ্যে হিরো অন্যতম। অনেকটা সময় ধরে ‘নিটোল-নিলয় গ্রুপ’ আমাদের দেশে হিরোর পণ্যের ডিস্ট্রিবিউশন চালিয়ে যাচ্ছে। এদেশের কর্পোরেট কমিউটার ক্ষেত্রে তাদের প্রধান ডিস্ট্রিবিউটর হলো ‘হিরো বাংলাদেশ’।

হিরোর রয়েছে বেশ কিছু জনপ্রিয় কমিউটার রাইডের মডেল ও পুরুষ নারী উভয়ের জন্য বিভিন্ন ইউনিসেক্স স্কুটারের কালেকশন। হিরো বাংলাদেশের স্পোর্টস বিভাগও বেশ আকর্ষণীয় এবং তাদের ফ্ল্যাগশীপ মডেল ‘হাঙ্ক’ ও ‘এক্সট্রিম’ সিরিজ বহু বছর ধরে ভালো পারফর্ম করে আসছে।

আরও পড়ুন

বিশ্বের সেরা ১০ গাড়ির ব্র্যান্ড

২০ জানুয়ারি ২০১৯

বর্তমান বিশ্বে সবাই সেরা হতে চায়। সব ক্ষেত্রেই সেরা হতে... বিস্তারিত এখানে

টায়ারের বয়স জানবেন যেভাবে

২০ জানুয়ারি ২০১৯

শখের গাড়িটির খুঁটিনাটি নিয়ে অনেকেরই চিন্তার অন্ত থাকে না। আর... বিস্তারিত এখানে