শনিবার, জুলাই ৪, ২০২০ ইং | আষাঢ় ২০, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১১ জ্বিলকদ, ১৪৪১ হিজরি

বার্তাপ্রতিক্ষণ / ধর্ম ও জীবন / রোজা রাখতে পারবেন অন্তঃসত্ত্বা নারীরাও !

পারবেন

রোজা রাখতে পারবেন অন্তঃসত্ত্বা নারীরাও !

অন্তঃসত্ত্বা নারীরাও কি রোজা রাখতে পারবেন? এই প্রশ্নটি আমরা সব সময় শুনে থাকি। রমজান মাসে রোজা রাখা নিয়ে অন্তঃসত্ত্বা নারীরা চিহ্নিতও হয়ে পড়েন। তবে চিন্তার কিছু নেই, অন্তঃসত্ত্বা নারীরা রোজা রাখতে পারবেন।
চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, অন্তঃসত্ত্বা হলে রোজা রাখা যাবে কি না, তা নিয়ে অনেক সময় তারা নানা সংশয়ে ভোগেন। তাদের জন্য বলছি, অন্তঃসত্ত্বা নারীরাও কি রোজা রাখতে পারবেন। তবে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে মেডিকেল চেকআপ এবং চিকিৎসকের পরামর্শ বাধ্যতামূলক বলে জানিয়েছেন তারা।
তবে রোজা রাখার আগে কিছু বিষয় অবশ্যই জানা জরুরি। আসুন জেনে নেই অন্তঃসত্ত্বা নারীরা রোজা রাখার আগে যে বিষয়গুলো অবশ্যই খেয়াল করবেন।
মেডিকেল চেকআপ
অন্তঃসত্ত্বা নারীদের রোজা থাকতে কোনো সমস্যা নেই। তবে সেক্ষেত্রে ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী চলতে হবে। রোজার আগে ডাক্তারের কাছ গিয়ে চেকআপ করানোটা খুব জরুরি।
পুষ্টিকর খাদ্য
অন্তঃসত্ত্বা মায়েরা যেহেতু সারা দিন কিছু খেতে পারবেন না, তাই সাহরিতে পুষ্টিকর খাদ্য বেশি খেতে হবে। খাবারে রাখতে হবে দুধের প্রাধান্য।
ডিম, মাছ, মাংস
রোজায় অন্তঃসত্ত্বা নারীরা ডিম, মাছ-মাংস পরিমাণমতো খেতে হবে। কারণ একজন সাধারণ মানুষের তুলনায় অন্তঃসত্ত্বা মায়ের পুষ্টির প্রয়োজন বেশি। এক্ষেত্রে তারা ডাক্তারের কাছ থেকে রোজার আগে ও পরের সময়ের খাদ্য তালিকা নিয়ে নিতে পারেন। এতে মা ও বাচ্চা দুজনই সুস্থ থাকবেন।
রোজার আগে চেকআপ
অন্তঃসত্ত্বা মায়ের রুটিন চেকআপ ছাড়াও রোজা শুরুর আগে তার চেকআপ করাতে হবে। কারণ মনে রাখতে হবে একজন অন্তঃসত্ত্বা নারী মানে মা ও শিশু দুজনই।
১০ ঘণ্টা ঘুম
রমজানেও সময় বের করে প্রতিদিন ১০ ঘণ্টা ঘুমাতে ও পর্যাপ্ত বিশ্রাম নিতে হবে অন্তঃসত্ত্বা মাকে।

আরও পড়ুন ঃ

খালেদা জিয়ার লিভ টু আপিলের শুনানি চলছে

 

আরও পড়ুন

৯ এপ্রিল জুমা রাত্রিতে পবিত্র শবে-বরাত

২৬ মার্চ ২০২০

আগামী ৯ এপ্রিল বৃহস্পতিবার পালিত হবে পবিত্র শবে বরাত। আজ... বিস্তারিত এখানে

মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস আজ

২৬ মার্চ ২০২০

আজ ২৬ মার্চ। মহান স্বাধীনতা দিবস। বাঙালি জাতির জীবনে ঐতিহাসিক... বিস্তারিত এখানে